স্বাস্থ্যবিধি

অ্যান্টিবায়োটিক আপনাদের বাচ্চার শরীরে ক্ষতি করে যাচ্ছে

শিশুদের বিভিন্ন প্রকারের অ্যান্টিবায়োটিক খাইয়ে থাকেন ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়াই। কিন্তু এই অ্যান্টিবায়োটিক নির্দিষ্ট কোন কাজে ব্যবহার করা হয় এবং এর সাইডএফেক্ট কি?

Antibiotic medicine

সারা বছরই আমরা কম বেশি সর্দি- কাশি ,ঠান্ডা লাগা , জ্বর ইত্যাদি সমস্যাগুলোই ভুগি। শিশুদের রোগ সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা কম থাকায় শিশুরা বেশি আক্রান্ত হয়। এই সময়গুলোতে বাবা-মা এর আতঙ্ক থেকেই শিশুদের বিভিন্ন প্রকারের অ্যান্টিবায়োটিক খাইয়ে থাকেন ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়াই। কিন্তু এই অ্যান্টিবায়োটিক নির্দিষ্ট কোন কাজে ব্যবহার করা হয় এবং এর সাইডএফেক্ট কি? তা সম্পর্কে আমাদের জানা নেই।

অ্যান্টিবায়োটিক আমাদের কি ক্ষতি করছে?

অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার করা হয় সাধারণত ভাইরাসকে মারতে। এখন আমরা একটুখানি সমস্যা দেখা দিলেই অ্যান্টিবায়োটিক খেয়ে থাকি। এই অ্যান্টিবায়োটিক যেমন খারাপ ভাইরাসকে ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে তেমনি আমাদের শরীরে ভালো ব্যাকটেরিয়া গুলো কেউ মেরে ফেলে। এর ফলে আমাদের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হতে বাধা সৃষ্টি হয়। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়া য় আমরা প্রায়ই অসুস্থ হতে থাকি।

ডাঃ শিবরঞ্জনী সন্তোষ জানিয়েছেন, এই সময় ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগের সংক্রমণ 10% এর ও কম। বর্তমানে হার্পাঞ্জিনা, হাত এবং মুখের রোগ, ডেঙ্গু, ফ্লু, কোভিড, ভাইরাল ডায়রিয়া এবং বমির কারণে সংক্রমণের হার 90% ও বেশি। এখন অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহার না বললেই চলে। তবুও আমরা অভিভাবকরা নিজেরা জোর করে শিশুদের অ্যান্টিবায়োটিক খাইয়ে থাকি। যার ফলে আমাদের পেটের ভালো ব্যাকটেরিয়া গুলিকে মেরে ফেলি।

Dr. Santosh জানিয়েছেন, এই অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধগুলো শুধুমাত্র কেবল নির্দিষ্ট রোগের জন্য। ফ্লু, চিকেন পক্স এই সমস্ত ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগে অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার করা হয়। Dr. Avash Pani জানিয়েছেন, তিনি প্রায়ই দেখে থাকেন শিশুদের বাবা-মায়েরা পরামর্শ ছাড়াই নিজেরা ডাক্তারি করে থাকে এবং Azee, Zifi, Taxim, Augmentin, Clampkid, Clavam, Copedem, Monocef এবং Oflox OZ এই সমস্ত অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ায়।

@newswap01

ডক্টর জানিয়েছেন তিনি যখন প্রেসক্রিপশনে এন্টিবায়োটিক লেখেন না বাবা মায়েরা অ্যান্টিবায়োটিক লেখার জন্য অনুরোধ করেন, নিজেরাই ডাক্তার হয়ে যায়। ডাক্তাররা জানে কোনটা দেওয়া উচিত কোনটা নয়। এখনকার দিনে এই সমস্যাটি গুরুতর সমস্যা। না বুঝে শুনে অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়ানোর ফলে শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাচ্ছে এবং তারা প্রায়ই অসুস্থ হয়ে যায়।

এই ধরনের আরো বিভিন্ন অজানা তথ্য এবং সতর্ক বার্তা সবার আগে পাওয়ার জন্য অবশ্যই আমাদের নিউজওয়াপ সাইটটিকে ফলো করবেন এবং নোটিফিকেশনটি অবশ্যই Allow করে দেবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button