কমলা লেবুর খোসার উপকারিতা

কমলা লেবুর খোসার উপকারিতা
কমলা লেবুর খোসার উপকারিতা

শীতকাল মানেই কমলালেবুর সিজন। কমলা লেবু রোজ খেলে আমাদের শরীরের যেমন উপকার হয় তেমনি কমলা লেবুর খোসা স্কিনের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় টোটকা। তাই আজ থেকেই কমলা লেবুর খোসা ফেলে না দিয়ে সংগ্রহ করে রাখুন। আপনার স্কিনের জন্য কমলালেবুর খোসার চেয়ে প্রয়োজনীয় কিছু হতেই পারে না।

আমরা জানি কমলা লেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন C, মিনারেল এবং আরো অন্যান্য এসেন্সিয়াল অয়েল। এগুলি আমাদের স্কিনের ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

চলুন দেখে নিই কমলা লেবুর কিছু অজানা উপকারিতা

কমলালেবুর খোসাতে রয়েছে সাইট্রিক এসিড যা আমাদের ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করে। এর ফলে আমাদের ত্বক মসৃণ এবং গ্লোয়িং হয়। কমলালেবুর খোসাতে রয়েছে অ্যান্টি ফাঙ্গাস, অ্যান্টি মাইক্রোব্রিয়ের, অ্যান্টি ইন – ফ্লেমেটরি যা আমাদের স্কিনের ব্রণের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।

আরও পরুনঃ

কিভাবে কমলা লেবুর খোসাকে ব্যবহার করলে আমরা উপকার পেতে পারি?

কমলা লেবুর খোসার স্ক্রাবার:

কমলালেবুর খোসাকে রাতভর জলে ভিজিয়ে রেখে পরের দিন সকালে সেটিকে পেস্ট করে নিন। এরপর পেস্ট করা কমলালেবুর খোসার  সঙ্গে কিছুটা পরিমাণ চিনির গুঁড়ো মিশিয়ে নম্র হাতে মুখে ম্যাসাজ করুন এরপর জল দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন এই স্ক্রাবারটি ব্যবহার করুন এবং দেখুন এই স্কাবারের ম্যাজিক।

কমলালেবুর খোসার ফেসপ্যাক:

কমলা লেবুর খোসাকে ফেলে না দিয়ে, রোদে তিন থেকে চার দিন শুকিয়ে নিন। এরপর শুকনো খোসাগুলোকে মিক্সার গ্রাইন্ডার এ গুঁড়ো করে কাঁচের জারে স্টোর করে রাখুন। এই পাউডার গোলাপ জলের সঙ্গে মিশিয়ে মুখ এবং সারা শরীরে ব্যবহার করুন। সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন এটি ব্যবহার করুন। এর ফলে আপনার স্কিন হয়ে উঠবে চকচকে উজ্জ্বল।

কমলা লেবুর খোসার টোনার:

কমলা লেবুর খোসাকে গরম জলে সিদ্ধ করে। জলটিকে  থেকে একটি বোতলের সংগ্রহ করে রাখুন। এই জলকে আপনি তুলো করে মুখে এপ্লাই করতে পারেন। এই টোনার টি ব্যবহার করলে আপনার মুখের ব্রুনো ও rash এর মতন সমস্যা দূর হবে।

এই ছিল কমলালেবুর খোসার কিছু অজানা উপকারিতা, যা আপনার দৈনন্দিন জীবনে একটু হলেও সাহায্য করবে। এরকম আরো বিউটি টিপস পেতে অবশ্যই চোখ রাখুন আমাদের এই প্রতিবেদনে।

এই ধরনের আরো বিভিন্ন অজানা তথ্য এবং সতর্ক বার্তা সবার আগে পাওয়ার জন্য অবশ্যই আমাদের নিউজওয়াপ সাইটটিকে ফলো করবেন এবং নোটিফিকেশনটি অবশ্যই Allow করে দেবেন।

Telegram Channelএখানে ক্লিক করুন
Facebook Pageএখানে ক্লিক করুন
Twitterএখানে ক্লিক করুন
Kooএখানে ক্লিক করুন
Google Newsএখানে ক্লিক করুন