করোনা এড়াতে এই পদ্ধতির মাধ্যমে ইমিউনিটি পাওয়ার বৃদ্ধি করুন

ইমিউনিটি পাওয়ার বৃদ্ধি করুন
ইমিউনিটি পাওয়ার বৃদ্ধি করুন

ইমিউনিটি পাওয়ার: আপনার মত অনেকেই জানেন বর্তমানে ভারতে আবার ফিরে আসছে করোনা ভাইরাস। ভাইরাসের দিনের পর দিন মিউটেশনের ফলে নতুন নতুন ভেরিয়েন্ট ও সাব ভেরিয়েন্ট দেখা যাচ্ছে ভারতে। জানা যাচ্ছে এই নতুন সাব ভেরিয়েন্ট অর্থাৎ BF.7, BA.5 এর থেকে এসেছে। একজন ব্যক্তি অন্তত 15 থেকে 18 জন ব্যক্তিকে আক্রান্ত করতে পারবে এই ভাইরাস এর প্রভাবে। এর মধ্যে বর্তমানে চলছে শীতকাল আর এই সময় প্রচুর মানুষের প্রতিরোধ ক্ষমতা অর্থাৎ ইমিউনিটি পাওয়ার কমে যায়।

শীতকালে ধুলোবালি এবং হালকা সর্দি কাশি লাগা এর ফলে ইমিউনিটি পাওয়ার আরো কমিয়ে দেয়। যার মাধ্যমে আপনি নিজের ইমিউনিটি পাওয়ার বৃদ্ধি করতে পারবেন।

প্রথমে মনে রাখতে হবে আপনাকে আপনার শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা অর্থাৎ ইমিউনিটি সিস্টেমকে শক্তিশালী করতে আপনার শরীরকে পরিষ্কার রাখতে হবে ভেতর থেকে। আপনার শরীরের ভিতর থেকে পরিষ্কার থাকলে আপনি যেকোনো রোগকে নিমেষের মধ্যেই কাবু করতে পারবেন।

কি করে শরীরের ইমিউনিটি পাওয়ার বৃদ্ধি করবেন?

কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি আপনার প্রতিরোধ ক্ষমতা অর্থাৎ ইমিউনিটি পাওয়ার কে বৃদ্ধি করতে পারবেন সাথে আপনার শরীরকে ভেতর থেকে পরিষ্কার করতে পারবেন।

আরও পরুনঃ

  1. Omicron BF.7 এর লক্ষন ও সতর্কবার্তা
  2. গ্রিন টি খেলেও হার্ট অ্যাটাক হতে পারে, কতটা খেলে আপনার পক্ষে উপকারী হবে জেনে নিন
  • বর্তমানে আপনার পার্শ্ববর্তী কোন সরকারি হাসপাতালে ও ক্যাম্পে গিয়ে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তিন নম্বর booster dose নিন।
  • সকালবেলা ঘুম থেকে ওঠার পরে কমপক্ষে ৩০ মিনিট সকালের রোদ গায়ে লাগান। সাথে সেই ৩০ মিনিটে কিছু পরিশ্রম মূলক কাজ যেমন হাটা দৌড়ানো বা ব্যায়াম করা।
  • সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে ফ্রেশ হয়ে খালি পেটে হালকা গরম জল পান করুন এক গ্লাস সাথে এক চামচ লেবুর রসের সাথে। এই লেবুর রস ও গরম জল আপনার শরীরকে ভেতর থেকে পরিষ্কার হতে সাহায্য করে।
  • রাতের খাবার সময়ের মধ্যে খেয়ে কমপক্ষে 30 মি পরে জল পান করুন। এতে খাবার হজম হতে সুবিধা হয় ও গ্যাস অম্বলের সমস্যা থেকে নিরাময় পাওয়া যায়।
  • প্রতিদিন এমন কিছু কাজ করুন যাতে আপনার শরীর থেকে কিছু পরিমাণ হলেও ঘাম বেরোয়। কারণ তাতে আপনার শরীরের বজ্র পদার্থ ঘামের মাধ্যমে বাইরে বেরিয়ে আসে।
  • খাওয়া-দাওয়ার সামগ্রির মধ্যে পরিবর্তন আনুন। ভাতের থেকে সবজি বেশি পরিমাণে খান। খাবার পাতে সবুজ এর পরিমাণ বেশি রাখুন। শীতকাল অনুযায়ী যে সমস্ত ফলমূল বাজারে পাওয়া যায় তার মধ্যে প্রতিদিন যে কোন একটা বা দুটো হলেও খান।
  • মাস্ক পড়ুন। আপনি যখন বাইরে যাচ্ছেন তখন ধুলোবালি এড়িয়ে চলার জন্য মাস্ক করাটা গুরুত্বপূর্ণ। সাথে বর্তমানে রয়েছে করোনাভাইরাস এখন মাস্ক পরা হয়ে উঠবে বাধ্যতামূলক। মাস্কর মাধ্যমে বিভিন্ন জীবাণু ও ফ্লু ভাইরাস আপনার থেকে দূরে থাকবে।
  • প্রতিদিন কমপক্ষে সাত থেকে আট ঘন্টা ঘুমানো। 
  • প্রতিদিন তিন থেকে চার লিটার জল পান করুন। জলপান এর মাধ্যমে শরীর হাইড্রেট থাকে ও শরীর থেকে টক্সিক পদার্থ বেরিয়ে যায়। 
  • অতিরিক্ত মদ্যপান ও অতিরিক্ত ধূমপান থেকে বিরত থাকুন।
  • শীতকালে মাঝে মাঝেই গরম জলে স্নান করুন।
  • বর্তমান সময়ে বাইরে কম বেরবেন আর বেরতে হলে করোনা ভাইরাস এর জন্য পদ্দক্ষেপ কে মাথায় রেখে বেরবেন।

এই সামান্য কিছু মেনে চলার মাধ্যমে আপনি করোনা ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে পারবেন ও সাথে ইমিউনিটি পাওয়ার কে বৃদ্ধি করতে পারবেন।

এই ধরনের আরো বিভিন্ন অজানা তথ্য এবং সতর্ক বার্তা সবার আগে পাওয়ার জন্য অবশ্যই আমাদের নিউজওয়াপ সাইটটিকে ফলো করবেন এবং নোটিফিকেশনটি অবশ্যই Allow করে দেবেন।

Telegram Channelএখানে ক্লিক করুন
Facebook Pageএখানে ক্লিক করুন
Twitterএখানে ক্লিক করুন
Kooএখানে ক্লিক করুন
Google Newsএখানে ক্লিক করুন