Uncategorized

ফ্লিপকার্ট পে-লেটার কিভাবে ব্যবহার করবেন?

ফ্লিপকার্ট পে-লেটার,  যারা একটু অনলাইন শপিং বেশি করে তারা কোন না কোন সময় এই কথাটি শুনেছে কিন্তু অনেকেই আছে যারা এ ব্যাপারে সম্পূর্ণ জানতে পারিনি বা নিজস্ব ব্যস্ততায় জানার চেষ্টা করেনি। ফ্লিপকার্ট পেলেটার এর মাধ্যমে আপনি কত রকম সুবিধা পেতে পারেন তাই আর্টিকেল এর মাধ্যমে  বিস্তারিতভাবে আপনারা জানতে পারবেন। 

ফ্লিপকার্ট পে-লেটার ক্রেডিট স্কোর

Flipkart History:

ফ্লিপকার্ট একটি ভারতীয় কোম্পানি,  এই কোম্পানির ফাউন্ডার হলো Binny Bansal & Sachin Bansal. এই দুজনাই Amazon কোম্পানির ex-employee ছিলেন।   এই দুজন নিজের একটি ভারতীয় কোম্পানি চালু করেন 2007 সালে, Amazon  এর মতন Flipkart  তার প্রথম অর্ডার পেয়েছিলেন একটি বই দুই ভাইয়ের মধ্যে একজন ডেলিভারি দিতে গিয়েছিলেন।  সেই কোম্পানি আজ ভারতের সবথেকে বড় অনলাইন শপিং কম্পানি। 

এই কোম্পানির সারা ভারতে বিভিন্ন জায়গায় ব্রাঞ্চ রয়েছে যার মাধ্যমে ভারতের প্রচুর পরিমাণ লোক তাদের জীবিকা নির্বাহ করছেন এই কোম্পানিতে কাজ করে। 

ফ্লিপকার্ট কোম্পানি সম্বন্ধে হয়তো আপনারা কিছুটা জানতে পেয়েছেন,  তবে এবার জানা যাক Flipkart এর pay later এর সুবিধা কিভাবে উপভোগ করবেন। 

@newswap01

Flipkart pay later  ব্যবহার করার কিছু  সুবিধা ও শর্তাবলীঃ 

যখন আপনি ফ্লিপকার্ট থেকে কিছু কিনতে  জান তখন সেখানে EMI  এর অপশন থাকে,  সেখানে Bajaj Finance  থেকে শুরু করে বিভিন্ন ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড এবং ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে লোন নেওয়ার অপশন দেখা যায়। এইসব অন্যান্য কোম্পানির ই এম আই এর পরিবর্তে ফ্লিপকার্ট নিজের একটি EMI  সিস্টেম লঞ্চ করেছে,  যার নাম Flipkart Pay Later , এর মাধ্যমে  অনলাইন  শপিং এর সময়  মাসের ৫ তারিখ এর আগের সময় পর্যন্ত কোন ট্যাক্স ছাড়া কোন জিনিস নিতে পারবেন। মাসের 5 তারিখ পার হয়ে গেলে আপনাকে প্রত্যেক মাসে আলাদা করে প্রোডাক্টের দাম এবং পেনাল্টি  চার্জ দুটোই দিতে হতে পারে। 

শুধু এই পর্যন্ত নয়  ফ্লিপকার্ট পেলেটার এর আরো  অনেক কন্ডিশন রয়েছে,  যদি আপনি  ফ্লিপকার্ট পে-লেটার এর মাধ্যমে  হাজার টাকার উপরে কোন জিনিসকে নেন তবে সেখানে 10 টাকা এক্সট্রা চার্জ দিতে হবে। 

Read More: ভারতের মুদ্রাস্ফীতির কারণ কী কী?

ফ্লিপকার্ট পেলেটার এর মাধ্যমে যদি আপনি  কোন জিনিস কিনে মাসের 5 তারিখের পরে টাকা দিতে যান তবে,  100 টাকা থেকে 500 টাকা পর্যন্ত কোন জিনিসের ওপর 60 টাকা এক্সট্রা পেনাল্টি চার্জ লাগবে,  501 টাকা থেকে হাজার টাকা পর্যন্ত লাগবে 125 টাকা,   হাজার এক টাকা থেকে দুই হাজার টাকা পর্যন্ত লাগবে 175 টাকা,  2001 টাকা থেকে 4000 টাকা পর্যন্ত লাগবে 300 টাকা,  4000 টাকা থেকে 5000 টাকা পর্যন্ত লাগবে 410 টাকা,  সবশেষে ৫০০০ টাকা থেকে ৫০০০ উপর যত এমাউন্ট ফ্লিপকার্ট আপনাকে ইএমআই হিসেবে দেবে ততো এমন পর্যন্ত লাগতে পারে 600 টাকা পেনাল্টি চার্জ। 

আপনি হয়তো ভাবতে পারেন 600 টাকা সেটি কোন ব্যাপার না পরের মাসে দিয়ে দেওয়া যাবে কিন্তু আসলে তা নয় কারণ আপনি হয়তো 50000 টাকার ইএমআই পেতে পারেন কিন্তু আপনার অনিয়মিত পেমেন্ট দেওয়ার জন্য আপনার ক্রেডিট স্কোর  কমে যাবে ফলে পরবর্তী সময়ে আপনি 50 হাজার টাকা থেকে হয়তো আপনার ক্রেডিট লিমিট 40 হাজারে দেখতে পেতে পারেন। এই কারণেই আপনাদের কাছ থেকে ফ্লিপকার্ট কেওয়াইসি করার সময় প্যান কার্ড নেয়। অতএব আপনি  হয়তো জানতে পেরেছেন ফ্লিপকার্ট পেলেটার এর কিছু সুবিধার সাথে কিছু অসুবিধাও রয়েছে,  এবার আপনি কিভাবে ব্যবহার করবেন সেটি সম্পূর্ণ আপনার উপর ।

Read another: আসামের বন্যায় বর্তমান অবস্থা, বাড়ছে মৃতের সংখ্যা

Flipkart Pay Later কিভাবে একটিভ করবেন? 

আপনি যদি আপনার  ফ্লিপকার্ট অ্যাপ টি ওপেন করে আপনার একাউন্ট এ ক্লিক করেন তবে নিচের অপশন দেখতে পারবেন ফ্লিপকার্ট পে-লেটার,  যদি সেখানে না দেখেন তবে উপরের সার্চ বাটনে ক্লিক করে সার্চ করবেন ফ্লিপকার্ট পে-লেটার,  হয়তো আপনি এবার নিশ্চয়ই খুঁজে পাবেন।  অপশনটিতে ক্লিক করবেন ক্লিক করার পরে ওখানে এপ্লাই করতে গেলে আপনাকে কিছু  ডকুমেন্ট দিতে হবে তারমধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ সেটি হল আধার কার্ডের সাথে ফোন নাম্বার লিঙ্ক থাকা,  আধার কার্ডের সাথে ফোন নাম্বার লিঙ্ক না থাকলে ফ্লিপকার্ট আপনাকে কোনোভাবেই ফ্লিপকার্ট পেলেটার প্রোভাইড করতে পারবে না। 

ফ্লিপকার্ট পে-লেটার

 আপনাকে প্যান কার্ড ফিলাপ করতে হবে তার সাথে আপনার নাম আপনার আধার কার্ড দিতে হবে তার সাথে আপনার মোবাইল নাম্বার লিঙ্ক করা নম্বরে ওটিপি যাবে সবকিছু ফিলাপ করার পরে আপনার পেলেটার একটিভ হয়ে যাবে।  ধৈর্য ধরবেন প্রথমে অল্প টাকার ক্রেডিট স্কোর আপনাকে দেয়া হবে কিন্তু পরে বেড়ে যাবে। 

 আপনি যত ফ্লিপকার্ট পেলেটার ব্যবহার করবেন তত আপনার ক্রেডিট স্কোর বাড়বে হ্যাঁ তবে অবশ্যই এটি মাথায় রাখবেন আপনাকে সবকিছু টাইম মত পেয়ে করতে হবে তবেই আপনার ক্রেডিট স্কোর বাড়তে থাকবে। 

আশা করি আমার এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনি বিস্তারিতভাবে জানতে পেরেছেন Flipkart Pay Later  এর কিছু সুবিধা অসুবিধা শর্তাবলী এবং এটি কিভাবে ব্যবহার করতে হয় তার পর্যাপ্ত ইনফর্মেশন। 

নতুন খবর এবং টেকনিকাল খেলাধুলা জ্ঞান মূলক তথ্য জানতে হলে আমাদের নোটিফিকেশন বেলটি Allow করতে ভুলবেন না এবং আমাদের সাথে জুড়ে থাক

Related Articles

Back to top button