খাওয়া দাওয়া

ফল ও শাকসবজি সতেজ রাখার ঘরোয়া উপায়

ফল, শাকসবজি দুধ এবং খাবার সতেজ রাখা গরমের সময়ে শীতের থেকে একটু কষ্টকর, আমরা চেষ্টা করি খাবার গুলিকে সতেজ রাখার কিন্তু তাও দিনের শেষে নষ্ট হয়ে যায়। 

খাওয়ার সরঞ্জামগুলি গরমকালে নিজের শরীরে যাওয়ার থেকে উল্টে তাজরীনে ফেলতে হয়। 

অনেকেই শাকসবজি ফলমূল দুধ জাতীয় খাবার সবকিছু ফ্রিজে রাখেন কিন্তু কিছু জিনিস ফ্রিজে রাখতে নেই যার ফলে সেই খাবারে কোন বিশেষত্ব এবং স্বাদ বজায় থাকে না, 

সব সময় একটি কথা মনে রাখবেন আগেকার দিনে কিন্তু রেফ্রিজারেটর সিনেমা কিন্তু তাও শাকসবজি ফলমূল খাদ্যদ্রব্য সতেজ রাখা যেত। 

@newswap01

যাদের বাড়িতে ছোট হয়েছে বা ভারতের অনেক বাড়িতে ফ্রিজ দেখাও যায় না সেখানে আপনি কোন কোন ঘরোয়া পদ্ধতি মাধ্যমে আপনার খাদ্যদ্রব্যকে বেশিদিন সতেজ রাখবেন আসুন দেখে নেওয়া যাক। 

মসলা কিভাবে সতেজ রাখবেন?

সাধারণত বাড়িতে দেখা যায় মসলার প্যাকেট খোলা অবস্থায় ফ্রিজের মধ্যে রেখে দেয় কিন্তু তাহলে কখনই বেশি সময় ধরে সেই মসলার স্বাদ গন্ধ বজায় রাখা সম্ভব হয়না। আপনি জানলে অবাক হবেন যে কোন মসলাকে আপনি ছয় মাস পর্যন্ত সতেজ রাখতে পারবেন, যদি আপনি মসলা গুলিকে কোন এয়ারটাইট কন্টেইনার এ রেখে দেন। 

মসলার সাথে অনেক সময় দেখা যায় বিভিন্ন আচার বা টমেটো সস ফ্রিজের মধ্যে আলগা অবস্থায় রেখে দেওয়া কিন্তু এতে তার লাইফটাইম বেশিদিন বজায় থাকে না তার থেকে বরং আপনি সেগুলো কে বাইরে রাখুন তার ঢাকনি ভালো করে আটকে। 

Related article: ওয়ার্ক আউট এর আগে এবং পরে কি খাবেন?

তেল এবং তেল জাতীয় দ্রব্য সতেজ রাখার উপায় কি?

তেল কখনোই ফ্রিজে রাখবেন না ফলে তেলের গুন ঈমান নষ্ট হয়ে যায়। তেরি রাখা উচিত কোন প্লাস্টিক কন্টেইনারে বা কোন মেটাল কন্টেনারে হালকা অন্ধকার জায়গায়।

ঘি আলগা অবস্থায় কখনোই রাখতে নেই তবে সেটি নষ্টের দিকে যেতে শুরু করে তার জন্য সবথেকে ভালো উপায় কাচের বোতলের মধ্যে বা এয়ারটাইট কোন মাটির পাত্রের মধ্যে রাখুন তাতে ঘি এর গুণমান বাড়তে থাকবে। 

শাকসবজি ভালো রাখার উপায়:

শাকসবজি যদি আপনি বাজার থেকে কিছু সময় আগে নিয়ে আসেন তবে কখনোই সেটি কোন ঠান্ডা জায়গায় বা ফ্রিজে রাখবেন না তার বদলে আপনি সাধারণত সবজি রাখার জায়গায় রেখে দেবেন। তবে মনে রাখবেন সবজি গুলো একটু খোলামেলা অবস্থায় থাকলে ভালো হয়। 

Read More: জলে থাকাকালীন আপনাদের হাতের এবং পায়ের চামড়া কেন  কুঁচকে ওঠে?

লেবু ভালো রাখার উপায়: 

আগেকার দিনের মানুষেরা লেবু কাগজে মুড়ে বা কোন কাপড় জাতীয় প্যাকেটের মধ্যে রেখে মুড়িয়ে রাখতেন তবে সেই লেবুর সতেজতা বজায় থাকে এবং তার স্বাদ গন্ধ বজায় থাকে। 

আদা এবং রসুন ভালো রাখার উপায়ঃ

 পুরনো দিনের মানুষেরা বা পরিবারের বয়স্ক মানুষ এরা কখনোই আদা এবং রসুন ঠান্ডা জায়গায় বা ফ্রিজে রাখতে না করে কারণ এইগুলি ফ্রিজের মধ্যে থাকার কারণে শক্ত হয়ে যায় এবং খাবারের সাথে তার স্বাদ গন্ধ কোন ভাবে মিশতে চায়না।  এই দুটি জিনিস কে  সাধারণত শাকসবজির সাথে খোলামেলা পরিবেশে রেখে দিন তাতে সতেজতা বজায় থাকবে।

আম এবং তরমুজ ও শসা সতেজ রাখার উপায়ঃ

 আম এবং তরমুজ এই জাতীয় ফল গুলি কখনোই ফ্রিজের মধ্যে রাখতে নেই।  কিন্তু আপনি যখন খাবেন ভাবছেন তার একঘণ্টা থেকে দেড় ঘন্টা আগে যদি ফ্রিজে রেখে দেন তবে সেই ফলের স্বাদ খুব ভালোভাবে বোঝা যায়।  আপনার বাড়িতে যদি ফ্রিজ না থাকে তাহলে তার বদলে কোন কন্টেইনারে ঠান্ডা জল রেখে তার মধ্যে  ফলগুলি রেখে দিলে খুব ভালো হবে। 

একই রকম শসা,  এই ফল টি মানুষকে হাইড্রেট করতে খুবই সাহায্য করে কিন্তু যদি এটিকে ফ্রিজে রাখা হয় তবে তার হাইড্রেট করার ক্ষমতা কমে যায় এবং ভিতর থেকে হার্ড হয়ে যায় তাই বেশিরভাগ রসালো ফল সবজি কখনোই ফ্রিজে রাখতে নেই।

দুধ এবং দুধ জাতীয় দ্রব্য ভালো রাখার উপায়ঃ

দুধ জাতীয় দ্রব্য ফ্রিজে রাখার দরকার কিন্তু ফ্রিজের  দরজার  যে জায়গা গুলি রয়েছে সেখানে  রাখা উচিত নয় কারণ জাতীয় দ্রব্য কখনোই তাপমাত্রা এবং হঠাৎ করে কমে যাওয়া উচিত  না।  সেই কারণে দুধ এবং জাতীয় দ্রব্য সবসময় ফ্রিজের পিছন দিকে অথবা ডিপ ফ্রিজের দিকে রাখা উচিত। 

সবজি  সতেজ রাখবেন কিভাবে?

 সবজি আপনি রেফ্রিজারেটরে রাখতে পারবেন কিন্তু এটিকে আরো বেশি ভালো রাখার জন্য চেষ্টা করবেন,   শাকপাতা গুলির সেগুলি আগেই কেটে পরিষ্কার করে নেবেন এবং ছোট ছোট করে টুকরো করে কোন এয়ারটাইট কন্টেইনার এ রাখবেন ওপর থেকে টিস্যু পেপার দিয়ে,  ফলে শাকসবজি বেশি সময় ধরে রাখতে পারবেন। 

কোন সবজি  যেমন টমেটো লঙ্কা আরো ইত্যাদি যেগুলি কাঁচা অবস্থায় আপনি বাজার থেকে নিয়েছেন তার পরেই ফ্রিজে ঢুকিয়ে রাখছেন এটি কখনোই করবেন না কারণ এই সবজিটি কাঁচা অবস্থায় রয়েছে।  চেষ্টা করবেন কাঁচা অবস্থায় বাইরে খোলামেলা জায়গায় রাখার যখন সেটি  পরিপূর্ণ আকার ধারণ করবে তখন আপনি কোন এয়ারটাইট কন্টেইনার এ রেখে ফ্রিজে রাখতে পারেন। 

কিছু ফল এবং খাদ্যদ্রব্য  যেগুলিকে ভালো রাখতে আপনাকে মনোযোগ দিতে হবে আসুন দেখে নিনঃ

 কলা ও আপেলঃ

 কলা এবং আপেল এগুলি কোন ফলের সাথে রাখা উচিত না,  বিশেষ করে কলা কারণ  এগুলি  হাইইথাইলিইন ফুড। কলা যদি আপনি  কোথাও ঝুলিয়ে রাখতে পারেন তবে খুবই ভালো হবে।  কলা গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় থাকে ফলে দ্রুত খারাপের দিকে যায় না। 

চা-কফি এবং মধু এই ধরনের দ্রব্য  থেকে অন্ধ হালকা তাহলে এগুলির ভালো। 

নতুন খবর এবং টেকনিকাল খেলাধুলা জ্ঞান মূলক তথ্য জানতে হলে আমাদের নোটিফিকেশন বেলটি Allow করতে ভুলবেন না এবং আমাদের সাথে জুড়ে থাক

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button