খবর

KK তার শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করলেন কলকাতায়

কাল কলকাতার নজরুল মঞ্চে একটি লাইভ কনসার্ট করার পর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন Bollywood singer KK.  খবর অনুযায়ী কাল অনুষ্ঠান থেকে বেরিয়ে হোটেলে পৌছানোর সময় হোটেলের সিড়িতে তিনি অজ্ঞান হয়ে যান এবং সেই হোটেলের সিঁড়ি থেকেই থাকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় এবং সেখানে গেলে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

বলিউড খ্যাত একজন গায়ক KK, তার ফ্যানবেস নেহাতই কম কম নয়। মৃত্যু কালীন অবস্থায় তার বয়স 54 হলেও। এই 54 বছর বয়সেও তার ছিল 18 থেকে 25 বছর বয়সী বহু ফ্যান। যা সচরাচর দেখা যায় না কোন গায়কের। এর আগেও তিনি বহুবার শো গেছেন পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় এবং কলকাতার আশেপাশে। তবে তিনি এবারে হয়তো এটা জানতেন না এবারে কলকাতায় এসে শো করলে তিনি আর বাড়ি ফিরতে পারবেন না।

30,31th মে কলকাতার নামজাদা দুটি কলেজ যথাক্রমে বিবেকানন্দ কলেজ এবং গুরুদাস কলেজ তাদের অ্যানুয়াল ফেস্ট এ গান গাওয়ার কথা ছিল kk এর। পরপর দুইটি অনুষ্ঠানই হওয়ার কথা ছিল নজরুল মঞ্চে।

source: KK fb Page

ঠিক সেই কথামতো অনুষ্ঠান নজরুল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয়। ২৯ এ মে kk এসে পৌঁছান কোলকাতায় । এবং 30 তারিখ নজরুল মঞ্চে বিবেকানন্দ কলেজের জন্য তার যে অনুষ্ঠানটি ছিল সেই অনুষ্ঠানে তিনি জান এবং সফলভাবে সেই অনুষ্ঠান শেষ করে অনুগামীদের ভালোবাসা বুকে নিয়ে তিনি হোটেলে ফিরে আসেন। সেদিনকার অনুষ্ঠান বেস্ট সুষ্ঠুভাবে মিটে ছিল তার।

@newswap01

গতকাল অর্থাৎ 31 এ মে কথামতো নজরুল মঞ্চের গুরুদাস কলেজের অনুষ্ঠানে গিয়ে উপস্থিত হন তিনি। তবে আগের দিনের মতো সেদিনকার অনুষ্ঠান শান্তিপূর্ণ ছিল না। তার সেখানে পৌঁছানোর আগে থেকেই শুরু হয়েছিল ঝামেলা। পাস না থাকার শর্তেও প্রচুর মানুষ প্রিয় সিঙ্গার kk এর অনুষ্ঠান দেখার জন্য  ভিড় করে নজরুল মঞ্চের গেটের বাইরে। কিন্তু নজরুল মঞ্চে সিকিউরিটি দা তাদেরকে প্রবেশ করতে না দেওয়ায় শুরু হয় ধস্তাধস্তি হাতাহাতি। বাইরে থাকা লোকজন ইট বাসের টুকরো প্রভৃতি ছুটতে শুরু করে সিকিউরিটি দের দিকে যার ফলে বেশকিছু জন আহত হয়। এবং হল কর্তৃপক্ষ দরজা খুলে দিতে বাধ্য হন।

যার ফলে নজরুল মধ্যে মাত্র আড়াই হাজার মানুষের ক্যাপাসিটি থাকার পরেও নজরুল মঞ্চা সেদিন উপস্থিত ছিল 7 হাজার মানুষ। নজরুল মঞ্চে এতটাই ভিড় হয়েছিল যে পা রাখার এবং দরজা খুলি বন্ধ করার মত জায়গা ছিল না। এবং এত ধস্তাধস্তির মধ্যে একবার আগুন নেভানোর যন্ত্র থেকে কার্বন-ডাই-অক্সাইড স্প্রে করা হয় মানুষজনকে সরানোর জন্য।

Read More: ফ্লিপকার্ট পে-লেটার কিভাবে ব্যবহার করবেন?

এইসব ঝামেলা যখন চলছে তখনও এসে পৌঁছায়নি kk। তার অনেকক্ষণ পরে তিনি এসে পৌঁছান নজরুল মঞ্চে। এবং তিনি তাঁর কথামতো স্টেজে ওঠেন। এদিকে মঞ্চে অতিরিক্ত ভিড়, আশেপাশের দরজা গুলো খোলা এবং মঞ্চে চারপাশে প্রচুর লোক থাকায় মঞ্চে এসি চললেও সেদিন যেন মনে হচ্ছিল মঞ্চে এসি চলছে না। তার সঙ্গে মঞ্চের লেজার লাইট মঞ্চের তাপমাত্রা আরও বাড়িয়ে দেয়।

এই অবস্থায় গান গাইতে গাইতে  কেকে মাঝখানে একবার অসুস্থ বোধ করেন এবং গান ছেড়ে পাঁচ মিনিটের জন্য ভিতরে গেস্ট রুমে চলে যান। কিন্তু তিনি গেস্ট রুমে যাওয়ার পর দর্শকদের চেঁচামেচিতে তিনি আবার ঐ রুম থেকে বেরিয়ে আসেন এবং স্টেজে উঠে গান গাওয়া শুরু করেন।

তিনি যখন স্টেজে গান গাইছিলেন তখন পরিষ্কার দেখা যাচ্ছিল তিনি দরকারের থেকে বেশি পরিমাণে ঘাম ছিলেন এবং বারবার জল খাচ্ছিলেন । এবং গান গাইতে গাইতে তিনি অনেকবার বলেন তার প্রচন্ড গরম লাগছে গরমে তার পীঠ শরীর জ্বলে যাচ্ছে । এবং তিনি দর্শকদের কে তার ঘামে ভেজা জামা দেখান।

তিনি মঞ্চের কর্তৃপক্ষকে লাইট গুলি কমাতে অনুরোধ করলেও প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবী সেই সময় লাইট গুলি কমানো হয়নি। তারপরেও এই গরমের মধ্যে অনুষ্ঠান শেষ করেন সংগীতশিল্পী kk।

Read another: আসামের বন্যায় বর্তমান অবস্থা, বাড়ছে মৃতের সংখ্যা

অনুষ্ঠান শেষ করে যখন তিনি বের হচ্ছিলেন তখন থেকেই তার মুখে একটা অন্য রকম দুর্বল ও তার ছাপ লক্ষ্য করা যাচ্ছিল। এবং অনুষ্ঠান থেকে বেরোনোর পর তিনি সোজা গাড়ি করে তার হোটেলের দিকে রওনা হন। এবং হোটেলে পৌঁছানোর পরপরই তিনি হোটেলের সিড়িতে পড়ে যান।

হোটেলের সিরিজে পড়ে যাওয়ার পর সঙ্গে সঙ্গে এম্বুলেন্স টাকা হয় এবং তাকে হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হলে ডাক্তাররা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

তার মৃত্যু খবর পাওয়ার পরেই তার অনুগামীরা ভেঙে পড়েন। এবং কেউ তার মৃত্যুর জন্য কলেজ কর্তৃপক্ষ আবার কেউবা নজরুল মঞ্চের কর্তৃপক্ষকে দায়ী করতে থাকেন।

তবে কালকে রাত্রে মৃত্যুর পর তাকে ওই হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়। আজ সকালে তার বাড়ির লোক কলকাতায় আসে। কাদেরকে বডি দেখানোর পর বডি কে ময়নাতদন্তের জন্য এসএসকেএম-এ পাঠানো হয়।

সেখান থেকে তার দেহকে রবীন্দ্রসদনে রাখা হয় সম্মান প্রধানের জন্য। সেখানে উপস্থিত থাকবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সহ তার বাড়ির লোক ছাড়াও আরো অনেকে। গান স্যালুট এর মাধ্যমে তাকে সম্মান জানানো হয়।

তার মৃত্যুতে জিৎ গাঙ্গুলী, জোজো, শ্রীজিৎ মুখার্জী সহ আরো অনেকে শোক প্রকাশ করেছেন।

নতুন খবর এবং টেকনিকাল খেলাধুলা জ্ঞান মূলক তথ্য জানতে হলে আমাদের নোটিফিকেশন বেলটি Allow করতে ভুলবেন না এবং আমাদের সাথে জুড়ে থাক

Related Articles

Back to top button