শীতকালে বিয়ে বাড়ি যেতে লজ্জা? শীতের সব্জিতে ফ্যাট কমান আর হয়ে যান পাতলা

শীতের সব্জিতে ফ্যাট কমান
শীতের সব্জিতে ফ্যাট কমান

শীতের সব্জিতে ফ্যাট কমাতে চান? শীতকালে কম-বেশি আমাদের সকলেরই ওজন বেড়ে যাওয়ার সমস্যা হয়ে থাকে, এর কারণ শীতকালে আমাদের শরীরের মেটাবলিজম রেট কম থাকে ফলে আমাদের শরীরে মেদ জমতে শুরু করে। গরম কালের তুলনায় শীতকালে আমাদের মেটাবলিজম রেট কম হওয়া ও আমাদের অলসতা কারণে শরীরের কম ঘাম উৎপন্ন হয় বা ঘাম হয় না বললেই চলে। এর কারনে আমাদের শরীরে ফ্যাটের পরিমাণ স্বাভাবিকের থেকে একটু বেশি বাড়তে শুরু করে। 

শীতকালে ওজন বাড়ার আরো একটি বিশেষ কারণ হলো আমাদের বিভিন্ন বিয়ের অনুষ্ঠান, পার্টি, বিভিন্ন প্রোগ্রাম এটেন্ড করতে গিয়ে স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি খাবার আমরা খেয়ে ফেলি এবং এই খাবারগুলি থেকে ফ্যাট বার্ন করার জন্য আমাদের যতটুকু এক্সারসাইজ করার প্রয়োজন হয় ঠিকমতো করি না ফলে ভুগতে হয় আমাদের ওজন বাড়ার সমস্যায়।

তবে বিশেষ কিছু টিপস বা উপায় অবলম্বন করে আমরা শীতকালেও ঝড়ের গতিতে কমিয়ে ফেলতে পারি আমাদের বেড়ে যাওয়া ফ্যাটকে।

শীতের সব্জিতে কি করে ফ্যাট কমবে দেখেনিনঃ

শীতকাল আসার সঙ্গে সঙ্গে আমারা উপহার পাই নানা ধরনের শীতের সব্জিতে ফলমূল। আমাদের হাতের কাছেই রয়েছে ওজন কমানোর চাবিকাঠি।

শীতকাল আমাদের জন্য নিয়ে আসে কম ক্যালরিযুক্ত শাকসবজি এবং অধিক পরিমাণ ভিটামিন C যুক্ত ফল যেগুলি আমাদের শরীরের জন্য খুবই ভালো এবং এটিকে ভরিয়ে রাখে ওজন কমাতেও সাহায্য করে।

ফুলকপি: শীতের সব্জিতে একটি অন্যতম সবজি হল ফুলকপি। ক্যালরির পরিমাণ অত্যন্ত কম,ভিটামিন D তে পরিপূর্ণ। এছাড়াও ফুলকপিতে উপস্থিত ফটোকেমিক্যাল যা আমাদের শরীরের ফ্যাট জমতে দেয়না। তাই দ্রুত শরীরে ওজন কমে। প্রতিদিনের ডায়েটে ফুলকপিকে রাখুন।

টমেটো: টমেটোতে রয়েছে অত্যাধিক পরিমাণ ভিটামিন C। আমরা সকলেই জানি ভিটামিন C ফ্যাট কাটার হিসাবে কাজ করে। শীতকালের ডায়েটে টমেটোকে অবশ্যই রাখুন।

পালং শাক: পালং শাকের রয়েছে কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, ভিটামিন D, ভিটামিন C যা আমাদের শরীরের পক্ষে অত্যন্ত ভালো একটি সুখাদ্যের উৎস। তাই শীতকাল পালং শাককে রাখুন

গাজর: অন্যতম শীতের সব্জি হল গাজর। গাজরের রয়েছে থায়ামিন, নিয়াসিন, ভিটামিন B6, ফলেইট, ম্যাংগানিজ, ভিটামিন A & K ,পটাশিয়াম এবং রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। ফাইবারকে আমরা ফ্যাট কাটার বলে থাকি। গাজর আমাদের শরীরের পক্ষে খুবই ভালো। আপনার ডায়েটে গাজরকে রাখুন।

বাঁধাকপি: বাঁধাকপি হলো এটি পাতা জাতীয় সবজি এতে ক্যালরির পরিমাণ অনেক কম। বাঁধাকপিতে রয়েছে শর্করা,থায়ামিন, ভিটামিন K, ক্যালসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ ,পটাশিয়াম, জিংক ইত্যাদি। আপনি যদি দ্রুত ওজন কমাতে চান বাঁধাকপি আপনার ডায়েটে রাখতেই হবে।

আরও পরুনঃ

শসা: শসা তে উপস্থিত ফাইবার এবং প্রচুর পরিমাণে জল আমাদের ক্ষুধা লাগার প্রবণতা কমায়। শসার আরেকটি গুন হল ডিঅক্সিফিকেশন যা আমাদের শরীরের হাইড্রেশন কি বজায় রাখে। শসা কে খাবার পরে স্যালাড হিসেবে ও দই দিয়ে রাইতা বানিয়ে সঙ্গে মিশিয়ে খেলেও অনেক উপকার। তাই আপনার ডায়েটে শসা সবার প্রথমেই রাখুন।

এছাড়াও অনেক শীতের সব্জি ও ফল যেগুলিতে ফাইবার এবং ভিটামিন C মাত্রা বেশি রয়েছে, সেগুলি বেশি বেশি করে খান। অন্তত দিনে 4 লিটার জল পান করুন। নিয়মিত ৩০ মিনিট এক্সারসাইজ অথবা হাঁটুন। এই রুটিন গুলি ফলো করলেই আপনার শরীরের মেদ শীতকালেও জলের মতো ঝরতে থাকবে।

এই ধরনের আরো বিভিন্ন অজানা তথ্য এবং সতর্ক বার্তা সবার আগে পাওয়ার জন্য অবশ্যই আমাদের নিউজওয়াপ সাইটটিকে ফলো করবেন এবং নোটিফিকেশনটি অবশ্যই Allow করে দেবেন।

Telegram Channel যুক্ত হতেএখানে ক্লিক করুন
Facebook Pageএখানে ক্লিক করুন
Twitterএখানে ক্লিক করুন
Kooএখানে ক্লিক করুন
Google News যুক্ত হতেএখানে ক্লিক করুন

Leave a Comment