আজকালখবর

মমতা ব্যানার্জী রাজ্যে নতুন করে ঘোষণা করলেন ৭ টি জেলা

আজ সোমবার নবান্নের বৈঠকে মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন প্রশাসনিক কাজকর্মের সুবিধা অর্থে যিনি সাতটি নতুন জেলা ভাগ করেছেন। ১) বহরমপুর জঙ্গিপুর ২) কান্দি ৩) সুন্দরবন ৪) বিষ্ণুপুর ৫) রানাঘাট ৬) ইছামতি ৭) বসিরহাট

Mamata Banerjee announced 7 New district in WB

আজ সোমবার নবান্নের বৈঠকে মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন প্রশাসনিক কাজকর্মের সুবিধা অর্থে যিনি সাতটি নতুন জেলা ভাগ করেছেন।

প্রশাসনিক কাজকর্মের সুবিধার্থে তিনি নতুন করে সাতটি জেলা গঠন করেছেন। সেই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন কামরাজ মডেলের মন্ত্রীসভা ভাঙ্গার কথা আমাদের মাথায় নেই। তিনি জানিয়েছেন ইতিমধ্যে মন্ত্রিসভার বিভিন্ন পদ ফাঁকা রয়েছে। তারপর কি একা সমস্তটা সামলানো সম্ভব হচ্ছে না। তিনি জানিয়েছেন সুব্রতর প্রয়াণে তার জায়গাটি খালি রয়েছে, খালি রয়েছে সাধন পান্ডের জায়গা টিও। কিছুদিন আগে এসএসসি দুর্নীতি কাণ্ডে পার্থ চট্টোপাধ্যায় গ্রেফতার হয়েছেন বর্তমানে তার জায়গাটিও খালি রয়েছে। সে ক্ষেত্রে আমার পক্ষে এতগুলো দপ্তর একসঙ্গে চালানো সম্ভব হচ্ছে না সেই কারণেই কিছু বদল এনেছি। চার থেকে পাঁচজনকে মন্ত্রিসভার নতুন মুখ হিসেবে দেখা যেতে পারে। এর আগেও 2017 সাল নাগাদ দার্জিলিং জেলা ভেঙে গঠিত হয়েছিল কালিম্পং পশ্চিম মেদিনীপুর ভেঙ্গে তৈরি হয়েছিল ঝাড়গ্রাম।

প্রশাসনিক কাজের সুবিধার্থে ৭টি জেলা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। মুর্শিদাবাদ জেলাটি থাকছে সঙ্গে আরও  জেলা বহরমপুর, জঙ্গিপুর ও কান্দি ভাগ হচ্ছে। উত্তর 24 পরগনা ভেঙে দুটি জেলা হবে। বনগাঁ ও বাগদা নিয়ে তৈরি হচ্ছে ইছামতি জেলা। বসিরহাট মহাকুমা নিয়ে নতুন একটি জেলা হবে। বাঁকুড়ায় বিষ্ণুপুর নামে নতুন জেলা তৈরি হবে ও সুন্দরবন নামে আরেকটি জেলা হচ্ছে দক্ষিণ ২৪ পরগনায়।

দেখে নেই কি কি জেলা নতুন করে যোগ হল

১) বহরমপুর জঙ্গিপুর

@newswap01

২) কান্দি

৩) সুন্দরবন

৪) বিষ্ণুপুর

৫) রানাঘাট

৬) ইছামতি

৭) বসিরহাট

সোমবার নবান্নে ঘোষিত হয়েছে এই নতুন ৭টি জেলা। বহরমপুর জঙ্গিপুর, কান্দি, সুন্দরবন, বিষ্ণুপুর, রানাঘাট, ইছামতি, বসিরহাট এই সাতটি জেলা যোগ হয়ে ৩০ টি জেলা হবে বলে অনুমান করা যাচ্ছে।

সুবিধা:

অনুমান করা যাচ্ছে দুটি জেলায় বিভক্ত করলে সেখানে উন্নয়নমূলক কাজ ভালো হবে এবং যখন কোন অনুদান আসবে দুটি জেলার পরিপ্রেক্ষিতে আসবে সেক্ষেত্রে বন্টনের ক্ষেত্রে সুবিধা হবে। আবার দুটি জনবিভক্ত হলে প্রশাসনিক কাজকর্মের সুবিধা হবে। রক্ষণাবেক্ষণ ভালোভাবে রাখা যাবে। রাজ্য যে সমস্ত খারাপ কাজ ধর্ষণ, খুন আইনশৃঙ্খলা না মানা এই সমস্ত দিকগুলো নজর রাখা যাবে। জেলা ভাগ হলে জেলা চালানোর জন্য লোক নিয়োগ করতে পারব।

বদল করা হচ্ছে তৃণমূলের জেলা সভাপতি

বারাসাত সংগঠনিক চেয়ারম্যান হচ্ছেন কাকলি ঘোষ দস্তিদার।

বনগাঁ গোপাল সেটকে সরিয়ে চেয়ারম্যান করানো হচ্ছে বিশ্বজিৎ দাস কে।

শ্রীরামপুরের স্নেহাশীষ চক্রবর্তীকে সরিয়ে চেয়ারম্যান করানো হলো অরিন্দম গুই কে।

ব্যারাকপুরের পার্থ ভৌমিক সরানো হলো এখনো পর্যন্ত কে বসবে ঘোষণা করা হয়নি।

দক্ষিণ দিনাজপুরের নতুন চেয়ারম্যান হলেন মৃণাল সরকার।

কোচবিহারের পার্থপ্রতিম কে সরিয়ে চেয়ারম্যান করা হলো অভিজিৎ দে ভৌমিক 

বাংলার রদ বদল করেন সোমবার নবান্নে মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্য চালানোর সুবিধার্থে ই এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন বলে উল্লেখ্য জানা যায়।

এই ধরনের আরো বিভিন্ন অজানা তথ্য এবং সতর্ক বার্তা সবার আগে পাওয়ার জন্য অবশ্যই আমাদের নিউজওয়াপ সাইটটিকে ফলো করবেন এবং নোটিফিকেশনটি অবশ্যই Allow করে দেবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button