Uncategorized

স্টক মার্কেট ক্র্যাশ হওয়ার কারণ কি?-Stock Market

স্টক মার্কেট লাস্ট 7 দিন থেকে নিচের দিকে নামতে থাকে যার ফলে সাধারণ রিটেলার ইনভেস্ট ওরা খুব চিন্তিত অবস্থায় রয়েছে। যেসব সাধারণ মানুষের পয়সা ইনভেস্ট করা রয়েছে তারা ভাবছে স্টক মার্কেটের প্রায় শেষের দিকে তাই বেশিরভাগ লোক স্টক মার্কেট থেকে টাকা তুলে নিচ্ছে।

Retail Investors

স্টক মার্কেটে যারা টাকা ইনভেস্ট করে এবং যারা ভাবছে যে আমরা অনেক লাভ করব, তাদের ধৈর্য্য ক্ষমতা অন্যান্যদের থেকে খুব বেশি পরিমাণ রাখা দরকার। 

স্টক মার্কেটে বিভিন্ন কোম্পানি তাদের পোর্টফলিও লঞ্চ করে যার মধ্যে আমরা সহজেই ইনভেস্ট করতে পারি আমাদের ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর মাধ্যমে, সাধারণভাবে ভাবা যায় যদি আমাদের কোন বিজনেস থাকতো সেই বিজনেসে লাভ ক্ষতি সবকিছুই মিলেমিশে থাকতো। সবশেষে ক্ষতি যদি লাভের থেকে বেশিরভাগ সময় দেখা যেত তবে সেই ব্যবসা চালিয়ে রাখা সম্ভব হতো না।

ঠিক সেই রকমই বাজারে অনেক ব্যবসা রয়েছে যারা দীর্ঘ অনেক বছর ধরে বাজারে রয়েছে এবং খুব সুনাম এর সাথে, যেমন- Tata, Birla, Adani, Reliance etc. 

@newswap01

এইসব কোম্পানি বাজারে রয়েছে বহু বছর ধরে এবং এরা লাভ-ক্ষতি সবকিছুকে সামলে দাঁড়িয়ে রয়েছে। 

Warren Buffett যিনি এত বড় স্টক মারকেট ইনভেস্টরস যিনি বলেছেন ইনভেস্ট করা টাকার 50% যদি লস হাওয়া না দেখতে পারো, তবে স্টক মারকেট এ আসা উচিত না। 

যে কোন সমস্যা কম সময়ের জন্য কখনোই স্টক মার্কেট বা শেয়ার বাজার শেষ হতে পারে না, শুধুমাত্র দরকার আপনার ধৈর্য তবে ঠিক আপনি আপনার লাভ এর টাকা তুলতে পারবেন। 

Related Post: UPI payment ফিচার ফোনের মাধ্যমে কীভাবে করবেন?

স্টক মার্কেট নিয়ে অনেক কথাই বলা হলো এবার আসুন দেখে নেওয়া যাক হঠাৎ করে স্টক মার্কেট নিজে যাওয়ার কারণ:

স্টক মার্কেট কেন নিচের দিকে যেতে শুরু করল?

Stock Market Crash

স্টক মার্কেট বর্তমানে নিচে যাওয়ার কারণ তিনটি,  মুদ্রাস্ফীতি, CRR & RBI ব্যাংকের REPO rate বৃদ্ধি।

এই দুটিকে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হবে কিন্তু এটা জানা দরকার যে এই কারণে কোন কোন স্টক এবং কোন কোন কোম্পানির সব থেকে বেশি পরিমাণ সমস্যা  হবে। 

যে সমস্ত কোম্পানি  গুলি প্রডাক্ট মানুফাকচারিং এর সাথে বেশি যুক্ত ( দামি  প্রডাক্ট যেমন AC, গাড়ি, ঘর ) সেসব কোম্পানিতে সবথেকে বেশি সমস্যা দেখা  যাবে, কারন এই কোম্পানিগুলো বেশিরভাগ সময় ব্যাংকের লোনের উপর ডিপেন্ড করে থাকে।

যে সমস্ত কোম্পানি গুলি মানুষের সাথে সার্ভিস এর মতন কাজের সাথে যুক্ত আছে বা আইটি সেক্টর তাদের সমস্যা কম দেখা যাবে। এইসব কোম্পানিগুলি ব্যাংকের উপর ডিপেন্ড করে থাকার দরকার হয় না। 

রেপো রেট কি? । What is REPO rate?

 রেপো রেট হল সাধারণ একটি সুদের মত,  আমরা যখন কোন সময় ব্যাংক থেকে লোন নেই তখন ব্যাংক আমাদের লোন দেয় কিন্তু টাকা প্রিন্ট করা এবং টাকার আসল মালিক  একটি ব্যাংক যার নাম  RBI, এই ব্যাংকের কাছেই সমস্ত টাকা-পয়সা লেনদেন করার ক্ষমতা রয়েছে। 

 আমরা সাধারন ব্যাংকের কাছে লোন এর আবেদন করি কিন্তু পয়সা  আর বি আই এর কাছে থাকায় সাধারণ ব্যাঙ্কগুলি আর বি আই এর কাছে এপ্লাই করে তাদের কাছ থেকে টাকা লোন হিসাবের নিয়ে আমাদেরকে লোন দেয়। 

ব্যাংক যেমন আমাদের কাছ থেকে সুদ নেয় ঠিক সেরকম যখন সাধারন ব্যাঙ্কগুলি RBI এর কাছ থেকে টাকা নেয় তখন  RBI ব্যাংক কে   সুদ দিতে হয়। 

আগে এই সুদের পরিমাণ ছিল 4% কিন্তু এখন সঠিক বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে 4.40%,  যে কারণে লোনের সুদের পরিমাণ বৃদ্ধি পেতে চলেছে। 

যখন আমাদের সুদের পরিমাণ বৃদ্ধি পেতে চলেছে সাধারণভাবেই অনেকে লোন নিতে যাওয়ার পরিকল্পনা করছিলেন তারা পিছিয়ে যাবেন।  লোন এর  মূল্যবৃদ্ধি হলে মানুষের মধ্যে বড় বড় জিনিসের চাহিদা বর্তমানে কমে যাবে যেমন  বড় বাড়ি,  বড় গাড়ি,  ইত্যাদি।  বড় বড় জিনিসের জন্য মানুষ তার ব্যাংকের সেভিংস নষ্ট না করে বেশিরভাগ লোনের ওপরই নির্ভরশীল হয়। 

 যখন লোন এর মূল্য অর্থাৎ সুদ কম ছিল তখন মার্কেটে কোন একটা দামী  জিনিস যেমন এসি,  গাড়ি কেনার জন্য মানুষ পিছপা হতো না কারণ সবার কাছে পয়সা আছে সবাই লোন নিতে পারবে,  সেই সুযোগের ব্যবহার করে সাধারণ ব্যবসায়ীরা কোন জিনিসের মূল্য বৃদ্ধি করে  বিক্রি করার চেষ্টা করে।  জিনিসের অতিরিক্ত মূল্য বৃদ্ধি হতো হলে মুদ্রাস্ফীতি দেখা যেত। 

 বর্তমানে লোন এর সুদের পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়ায় অনেক মানুষ এই ভাববে লোন না নেওয়ার ফলে বাজারে কোন দামি জিনিসের দাম ঠিক দেখা যাবে হলে মুদ্রাস্ফীতি  কমবে। 

CRR কি?|Cash Reserved Ratio

CRR হল Cash Reserved Ratio. এই ব্যাপারটির  সাথে সাধারণ মানুষের কোন সম্বন্ধ নেই। এই ব্যাপারটি  শুধুমাত্র, RBI  এবং বাকি  সাধারণ  ব্যাঙ্কগুলির,  যেমন- Punjab Bank of India, State Bank of India, HDFC, ICICI etc. 

এ পদ্ধতির মাধ্যমে সাধারণ বাঙালিকে RBI  এর কাছে  টাকা সেফটি হিসেবে জমা রাখতে হয়,  যদি কোন এ ব্যবসা তখন সেই ব্যাংকের কাস্টমার দের টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য RBI  তাদের সাধারণ ব্যাঙ্কগুলির কাছ থেকে টাকা নিয়ে রাখে। 

যেমন বর্তমানে ICICI ব্যাংকের 10 হাজার কোটি টাকা RBI জমা রেখে দিয়েছে। এখন RBI  ব্যাংকের REPO  rate  আরও বেশি টাকা RBI  এর কাছে জমা রাখতে হবে। 

More article: যৌবন ধরে রাখার সহজ উপায় | Keep your youth simply

 সবথেকে খারাপ ব্যাপারটি হলো আমরা ব্যাংকে টাকা জমা রাখলে আমরা বছর পার হলে কিছু পার্সেন্ট সুদ পাই কিন্তু CRR হিসাবে RBI  এর কাছে টাকা থাকলে বাকি ব্যাঙ্কগুলি কোন রকম সুখ পায় না| 

মুদ্রাস্ফীতি কি? | What is Inflation?

মুদ্রাস্ফীতি হল  আমেরিকান ডলারের সাথে ভারতীয় টাকার রেশিও। বাজারে যখন কোন জিনিসের অতিরিক্ত পরিমাণ দাম বেড়ে যায় তখন মুদ্রাস্ফীতি দেখা যায় অর্থাৎ কোন জিনিসের সঠিক  দামের থেকে অতিরিক্ত পরিমাণ দাম বৃদ্ধি  পাওয়া। RBI ব্যাংকের REPO rate  বৃদ্ধি পাওয়ার কারণ হলো এই মুদ্রাস্ফীতি কে কমানো। 

Inflation rate

এই সবকিছুর একটিমাত্র লক্ষ সেটি হল মুদ্রাস্ফীতি কমানো| 

নতুন খবর এবং টেকনিকাল খেলাধুলা জ্ঞান মূলক তথ্য জানতে হলে আমাদের নোটিফিকেশন বেলটি Allow করতে ভুলবেন না এবং আমাদের সাথে জুড়ে থাক

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button