খবরআজকাল

টোল প্লাজার নতুন নিয়ম ! টাকা না দিয়ে আর পালাতে পারবেন না

রোড মিনিস্টার দের সিদ্ধান্তে জানা যাচ্ছে কিছুদিনের মধ্যেই ন্যাশনাল হাইওয়েতে  দেখা যাওয়া সমস্ত টোল প্লাজা কে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Toll Plaza
Toll Plaza new rule

রোড মিনিস্টার দের সিদ্ধান্তে জানা যাচ্ছে কিছুদিনের মধ্যেই ন্যাশনাল হাইওয়েতে  দেখা যাওয়া সমস্ত টোল প্লাজা কে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।  এর কিছু গুরুত্বপূর্ণ কারণ রয়েছে,  টোল প্লাজার পরিবর্তে ব্যবহার করা হবে ক্যামেরা জেটি অটোমেটিকলি গাড়ির নাম্বার কে ডিটেক্ট করে গাড়ির মালিকের ব্যাংক একাউন্ট থেকে টোল চার্জ  কেটে নেবে। 

বর্তমান সময়ে ভারতের প্রায় 97 শতাংশ গাড়ি এর মালিক FASTag  এর মাধ্যমে টোল ট্যাক্স পে করে,  কিন্তু  বাকি 3 পার্সেন্ট লোক রয়েছে যারা ক্যাসে টোল ট্যাক্স পে করে। আপনি হয়তো দেখবেন টোল প্লাজা তে শুরুর দিকে কিছু স্তম্ভের মত স্ট্রাকচার বানানো থাকে এবং একটি এরিয়া করা থাকে প্রায় 100 মিটার মত সেখানে গাড়ি প্রবেশের পরে গাড়ি টোল ট্যাক্স পেয়ে করার পরে ছেড়ে যাওয়া পর্যন্ত 10 সেকেন্ডের বেশি সময় হলে সেই গাড়ির টোল ট্যাক্স মাফ করে দেওয়া হয়,  কিন্তু এটি শুধুমাত্র ক্যাশ পেমেন্ট করা মানুষদের জন্য। বর্তমানে ক্যামেরার মাধ্যমে গাড়ির নাম্বার প্লেট থেকে নাম্বারকে ডিটেক্ট করে  গাড়ির মালিকের গাড়ির সাথে লিংক করানো ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে টোল ট্যাক্স কেটে নেবে নিমেষের মধ্যে। 

এইনিয়মটি তাদের জন্যই করা  হয়েছে যারা কোনক্রমে চেষ্টা করে টোল  টেক্স না দিয়ে পালানোর জন্য।  কিন্তু এই নতুন নিয়মের মাধ্যমে কিছু খারাপ দিক রয়েছে সেগুলো নিচে আলোচনা করা হলো:

টোল প্লাজার নতুন ক্যামেরায় কি  সুবিধা রয়েছে?

 টোল প্লাজা তে আগে ঘন্টায় প্রায় 140 টি গাড়ি পার করা সম্ভব হতো কিন্তু ক্যামেরা আসার পরে সেটি হয়ে দাঁড়াবে প্রায় ২৬০ এর কাছাকাছি।  যারা টোল ট্যাক্স না দিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে  তাদের জন্য হয়েছে এই নিয়মটি।  বর্তমানে টোল প্লাজা তে আর দাঁড়াতে হবে না কারণ সবকিছুই হবে অটোমেটিক।  টোল প্লাজা তে এই ক্যামেরা যার নাম Automatic Number Plate Reader (ANPR) যার মাধ্যমে গাড়ির নাম্বার  ডিটেক্ট করে নিয়ে গাড়ির  মালিকের লিঙ্কিং ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে টোল ট্যাক্স কেটে নেওয়া হবে। এর ফলে যাঁরা টেক্স না দিয়ে পালানোর চেষ্টা করে তারাও এই হাত থেকে ছাড়া পাবে না। সবথেকে ভালো ব্যাপার কাউকে এবার থেকে লাইনে দাঁড়াতে হবে না। 

@newswap01

টোল প্লাজার নতুন ক্যামেরায় কি  অসুবিধা রয়েছে?

 টোল প্লাজার  বদলে ক্যামেরা আসলে তাতে টোল প্লাজার কর্মচারী কমে যাবে,  ভারতীয় রাস্তায় কিছু সময় ট্রাক্টর সহ আরো অনেক যানবহন রয়েছে যাদের নাম্বার প্লেট এ অনেক সময় মাটি  লেগে থাকে ও সঠিকভাবে বাইরের দিক থেকে দেখা যায় না। সে নম্বরগুলি ক্যামেরাতে ভালো হবে ডিটেক্ট করা সম্ভব নয়,  সবথেকে বড় ব্যাপার হল এই নতুন সিস্টেমের ক্যামেরা 2019 সালের আগের তৈরি হওয়া নাম্বার প্লেটের সংখ্যা ডিটেক্ট করতে পারবে না।  অতএব খুব সহজে টোলপ্লাজা তুলে দেওয়া সম্ভব নয় ধীরে ধীরে হয়তো এটি বৃদ্ধি পাবে। 

ভারতবর্ষের অর্থনৈতিক দিন দিন নিম্ন দিকে যেতে চলেছে সেই কারণে টোলপ্লাজায় কাজ করা কর্মচারীদের বরখাস্ত করা উচিত হবে না বলে আমাদের মনে হয়। 

এই ধরনের আরো বিভিন্ন অজানা তথ্য এবং সতর্ক বার্তা সবার আগে পাওয়ার জন্য অবশ্যই আমাদের নিউজওয়াপ সাইটটিকে ফলো করবেন এবং নোটিফিকেশনটি অবশ্যই Allow করে দেবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button